নারী, যৌবন ও নির্বাচিত প্রবন্ধ: ২০. আদব~~Hedaet Forum~~


Email: Password: Forgot Password?   Sign up
Are you Ads here? conduct: +8801913 364186

Forum Home >>> Literature >>> নারী, যৌবন ও নির্বাচিত প্রবন্ধ: ২০. আদব

Tamanna
Modarator Team
Total Post: 7426

From:
Registered: 2011-12-11
 

২০. আদব
আমরা আদব বলতে বুঝে থাকি- যার জায়গা যেখানে সে বসবে সেখানে বা যথা স্থানে পাত্রস্থ করাই আদব, না করাই বেয়াদবী। শিক্ষকের জায়গা চেয়ারে, ছাত্রের জায়গা বেঞ্চে। কিন্তু শিক্ষকের চেয়ারে যদি ছাত্র বসে তবে আদবের বরখেলাফ হলো। এটাকেই বেয়াদব বলা যায়। আদব যে রাখে না তাকে বেয়াদব বলা হয়। বাবা-মা সম্মান পাবার যোগ্য। তাদেরকে যদি সম্মান না করা হয়, তবে আদব ভঙ্গ হবে। কারণ বাবা-মায়ের স্থান সম্মানে ছিল। তাদেরকে সে স্থানে রাখা হয় নি।
জুতার স্থান পায়ে, টুপির স্থান মাথায়। কিন্তু জুতা মাথায় দিয়ে, টুপি পায়ে পড়লে তাকে বেয়াদব বলা হবে। তখন আদব থাকবে না। সান গ¬াসের স্থান চোখে কিন্তু যদি সান গ¬াস মাথায় লাগাই তবে সেখানেও আদব ভঙ্গ হবে। চেয়ারের স্থান বসার, টেবিলের স্থান পড়ার কিন্তু যদি টেবিলে বসে চেয়ারে পড়তে চেষ্টা করি তবে সেটাও আদব ভঙ্গ হবে। ওরনার স্থান বুকে ঝুলানো, কিন্তু যদি ওরনাকে গলায় পেচিয়ে রাখি তবে সেটাও আদব ভঙ্গ হবে। যে কথা যেখানে উপযুক্ত, সে কথা সেখানে বলাই আদব। উপয্ক্তু স্থানের কথা অন্যত্র বলাই বেয়াদবী। যেমন প্রেমিক-প্রেমিকা যে কথা পরস্পর বলতে পারে, তা গুরু জনের সাথে বলা বেয়াদবি। মোটকথা উপযুক্ত স্থানের উপযুক্ত আচরণ করাই আদব, আর বিপরীত আচরণ করাই বেয়াদব।
বেয়াদব এর কাছ থেকেও আদব শিক্ষা লাভ করা যায়। কারণ, বেয়াদবের বেয়াদবি আচরণ বাদ দিলেই আদবী আচরণ শিক্ষা লাভ করা যায়। বেয়াদব মানুষ যেমন ঝগড়া করে, গালমন্দ করে, হিংসা করে, অন্যের ক্ষতি করে, চিল্লা-চিল্লী করে, অশ্লীল ভাষা ব্যবহার করে ইত্যাদি ইত্যাদি। বেয়াদবের এমন সব আচরণ বাদ দিলেই আদবী হওয়া যায়। কারো ভাল পরামর্শ না শোনা, কৃপণতা করা, অভিশাপ করা, খোটা দেয়া, অশ্লীল কাজ করা, মানুষের দোষ খোজা, মুখের উপর প্রশংসা করা বা চামচা গিরি করা, বড়দের সম্মান না করা, ছোটদের স্নেহ না করা, অপরের সম্পদ আত্মসাত করা, ওয়াদা খেলাপ করা, ঝগড়া করা, মিথ্যা বলা, জীবের প্রতি দয়া না করা, কাউকে কষ্ট দেয়া, বিদ্বেষ করা, প্রতারণা করা, গালি দেয়া, অপচয় করা, কারো প্রতি জুলুম করা, অহংকার করা, বিদ্রোহ করা, গীবত করা, মানুষের দু:খে উল্লাস করা, মানুষের সাথে দুর্ব্যবহার করা, মোনাফেকী করা, অপবিত্র থাকা, খারাপ নামে কাউকে ডাকা, উপহাস করা ইত্যাদি সবই বেয়াদবি। তাই আসুন আমরা ইচ্চায় বা অনিচ্ছায় সকল বেয়াদবি থেকে নিজেকে রক্ষা করি, দেশ ও জাতিকে রক্ষা করি। বেয়াদবি বাদ দিয়ে আদব শিখে দেশকে সভ্য জাতিতে রূপান্তরিত করি। হেদায়েতি জীবন যাপন করি।